মাত্র ১ জিবি পেনড্রাইভ দিয়ে উইন্ডোজ সেভেন লাইভ সিডি চালাবেন যেভাবে

আমার ব্লগের আগের একটি পোস্টে আমি লিখেছিলাম
উইন্ডোজ ক্র্যাশ করে কম্পিউটার ওপেন না হলে কীভাবে সি ড্রাইভের ডাটা বাঁচাবেন? 
সেখানে আমি আপনাদেরকে কয়েকটি লাইভ উইন্ডোজ আই.এস.ও ফাইল দিয়েছিলাম। আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো সেই আই.এস.ও ফাইলগুলো থেকে Windows Live 7 ISO সিডিতে বার্ন/রাইট না করে কীভাবে পেনড্রাইভ বুটাবল করে রান করাবেন।

আমরা প্রায় সবাই পেনড্রাইভ বুটাবল করে উইন্ডোজ বা লিনাক্স ইনস্টল করার পদ্ধতি জানি। উইন্ডোজ বুটাবল করার জন্য অনেক সফটওয়্যার রয়েছে। সাধারণভাবে সেই সব সফটওয়্যার দিয়ে লাইভ উইন্ডোজ পেনড্রাইভে বুটাবল করা নাও যেতে পারে (কিছু কিছু মাল্টিবুট সফটওয়্যার দিয়ে হতে পারে)। আজ আমি আমার একটি জানা পদ্ধতি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।

যা যা লাগবে
১. একটি পেনড্রাইভ (অন্তত ১ জিবি)
২. লাইভ উইন্ডোজ ৭ আই.এস.ও ফাইল
৩. আই.এস.ও ফাইল ওপেন করার জন্য ভার্চুয়াল সিডি/ডিভিডি ড্রাইভ বা এক্সট্রাক্ট করার সফটওয়্যার।
৪. পেনড্রাইভ বুটাবল করার জন্য সফটওয়্যার।

যেভাবে সংগ্রহ করবেন
১. পেনড্রাইভ নিজে সংগ্রহ করুন।
২. উইন্ডোজ লাইভ ৭ আই.এস.ও ডাউনলোড
৩. ভার্চয়াল সিডি/ডিভিডি ড্রাইভ তৈরি করার জন্য VirtualClone Drive.
৪. পেনড্রাইভ বুটাবল করার সফটওয়্যার এখান থেকে নামিয়ে নিন।

যেভাবে কাজ করবেন
১. প্রথমে প্রয়োজনীয় সবকিছু সংগ্রহ করে আপনার কম্পিউটারে একটি ভার্চুয়াল সিডি/ডিভিডি রম তৈরি করে নিন। প্রয়োজনে এই পোস্টটি দেখুন
আপনার কম্পিউটারে তৈরি করে নিন ভার্চুয়াল সিডি/ডিভিডি রম
২. এরপর লাইভ সিডি ভার্চুয়াল সিডি/ডিভিডি রমে মাউন্ট করে নিন (উপরের পোস্টের ৪নং পয়েন্ট দেখুন)
৩. পেনড্রাইভ আপনার কম্পিউটারের ইউ.এস.বি পোর্টে যুক্ত করুন।
৪. পেনড্রাইভ বুটাবল করার জন্য যে সফটওয়্যার ডাউনলোড করেছেন তা এক্সট্রাক্ট করুন। সেখান থেকে HP USB Formatter সফটওয়্যারটিতে মাউসের রাইট বাটন ক্লিক করে Run as Administrator হিসেবে ওপেন করুন।
৫. Device ঘরে আপনার পেনড্রাইভ সিলেক্ট করে দিন (যদি পেনড্রাইভ অটো সিলেক্ট না হয়)।
৬. File system ঘরে NTFS সিলেক্ট করুন।
৭.  Format options থেকে Quick Format বক্সে টিক দিন।
৮. এবার Start বাটনে ক্লিক করুন এবং যে বার্তাগুলো আসবে সেখানে Yes এবং Ok করুন। ব্যাস আপনার পেনড্রাইভ ফরম্যাট করার কাজ শেষ।
HP-USB-Formatter
৯. এবার ভার্চুয়াল সিডি/ডিভিডি রমে মাউন্ট করা লাইভ উন্ডোজ আই.এস.ও ফাইলটি ওপেন করে সিলেক্ট অল (Ctrl+A) করে সব কপি (Ctrl+C) করুন এবং আপনার পেনড্রাইভে পেস্ট (Ctrl+V) করুন।
১০. কপি করা হলে পেনড্রাইভ বুটাবল করার জন্য যে সফটওয়্যারটা ডাউনলোড করেছেন সেখান থেকে Win8USB Installer Maker For Windows 8 সফটওয়্যারটি Run as Administrator হিসেবে ওপেন করুন।
১১. Select a USB Drive ঘরে আপনার পেনড্রাইভের ড্রাইভটি সিলেক্ট করে দিন। এবং Fix USB Boot বাটনে ক্লিক করুন। Completed! বার্তা আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
Windows-8-USB-Installer-Maker
১২. আপনি যদি সঠিকভাবে কাজগুলো করতে পারেন তাহলে আপনার পেনড্রাইভ লাইভ উইন্ডোজ রান করার জন্য প্রস্তুত। এবার শুধু কম্পিউটারের বুট সেটিংস ঠিক করে নিতে হবে।

বায়াস থেকে বুট সেটিং করবেন যেভাবে
১. প্রথমে কম্পিউটার চালু থাকলে রিস্টার্ট দিন। আর না থাকলে স্টার্ট করুন।
২. রম অ্যাকটিভ হওয়ার সাথে সাথে (মাদারবোর্ডের প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের নাম) বায়াসে ঢোকার বাটন চাপুন। বায়াসে ঢোকার বাটন সাধারণত F2 হয়। F1, F8 বা অন্য কিছুও হতে পারে। বায়াসে ঢোকার বাটন জানতে কম্পিউটার ওপেন করে মনিটরের নিচের দিকে ভালো করে খেয়াল রাখুন Boot এর জন্য কোন বাটন দেখায়।
৩. বায়াসে ঢোকার পরে Boot থেকে Boot Device Priority তে যান এবং 1st Device Priority হিসেবে Removable Device সিলেক্ট করে দিন।
৪. Boot থেকে Hard Disk Device তে যান এবং এখানে 1st Device হিসেবে আপনার পেনড্রাইভের নাম দেখিয়ে দিন। (সবার নাও লাগতে পারে আবার সবার এই অপশন নাও থাকতে পারে)।
৫. F10 দিয়ে সেভ করে বেরিয়ে আসুন।
৬. এবার পিসি স্টার্ট করে দেখুন আপনার পেনড্রাইভ থেকে লাইভ উইন্ডোজ সেভেন ওপেন হয়েছে।

বি.দ্র.: আপনি কাজ ঠিকভাবে করতে পারলে সফল হওয়ার কথা। এছাড়াও এই একই পদ্ধতিতে আপনি লাইভ এক্সপি বুটাবল করে দেখতে পারেন। আমি আপনাদের সাথে পরবর্তীতে অন্য একটি উপায়ে কিভাবে লাইভ এক্সপি বা সেভেন পেনড্রাইভ থেকে চালাবেন সে বিয়ষে লিখবো।